অটো ড্রাইভারের নাতি থেকে বিশ্বসেরা বোলার। জসপ্রিত বুমরার জীবন কাহিনী

নিজস্ব সংবাদদাতা Thursday, January 1, 1970 Technology



ছোটবেলা থেকেই বক্সিং, বাস্কেটবল নিয়ে মেতে থাকতেন। তথ্য-প্রযুক্তিতে বি-টেক ডিগ্রি ঝোলায় পুরলেও খেলার মাঠের লড়াকু মনোভাব থেকেই সেনাবাহিনীতে যোগ দিয়েছিলেন। ২৮ বছরের ক্যাপ্টেন সুরভিই প্রথম মহিলা, যিনি সেনাবাহিনীর মোটরবাইক আরোহী ‘ডেয়ারডেভিল টিম’-এর সদস্য হিসেবে এ বার প্রজাতন্ত্র দিবসে রাজপথের শোভাযাত্রায় যোগ দিচ্ছেন। বাইরে চড়ে অবিশ্বাস্য কসরতের জন্য বিখ্যাত সেনার ‘ডেয়ারডেভিল টিম’-এর বয়স ৮৪ বছর হলেও, এই প্রথম তাদের প্রজাতন্ত্র দিবসের টিমে কোনও মহিলা অফিসার যোগ দিচ্ছেন।

মজার কথা হল, ক্যাপ্টেন সুরভি বাইকে কসরৎ করা শুরু করেছেন মাত্র তিন মাস আগে। প্রথমে হাত ছেড়ে বাইক চালাতেই ভয় পেতেন। তার পর হাত ছেড়ে বাইক চালানো, চলন্ত বাইকে উঠে দাঁড়ানো শুরু করেন। ২৬ জানুয়ারির সকালে চলন্ত বাইকে দাঁড়িয়েই রাষ্ট্রপতিকে অভিবাদন জানাবেন তিনি। সুরভির মতোই বায়ুসেনার দলের সামনেও এ বার থাকছেন এক মহিলা, ফ্লাইং অফিসার রাগি রামচন্দ্রন। শুধু বায়ুসেনা বা সেনা নয়। এ বারের প্যারেডে অন্যান্য বাহিনীতেও মহিলা অফিসারদেরই জয়জয়কার।

প্যারেডের ডেপুটি কমান্ডার মেজর জেনারেল রাজপাল পুনিয়ার মতে, আসাম রাইফেলসের মহিলা জওয়ানদের একটি দল শোভাযাত্রায় অংশ নেবে। তার নেতৃত্ব দেবেন মেজর খুশবু কানোয়ার। মেজর কানোয়ার জানালেন, গত পাঁচ মাস ধরে প্রশিক্ষণ চলছে। অনেকেই তাঁদের ছোট সন্তানকে বাড়িতে রেখে এসেছেন।